শিখে নিন বাঙালি স্বাদের অসাধারণ নাস্তা ‘মাংস পিঠা’র খুব সহজ রেসিপি

zal-pul-pitha

পিঠা নাম শুনলেই মিষ্টি জাতীয় পিঠার কথা সবার প্রথমে মাথায় আসে। কিন্তু সব পিঠা তো মিষ্টি হয় না। আমাদের বাঙালিদের ঝুলিতে এমন কিছু অসাধারণ ঝাল পিঠা রয়েছে যার স্বাদ একবার খেলে অনেকটা দিন মুখে লেগে থাকে। বিকেলের নাস্তায়, অতিথি আপ্যায়নে এই পিঠার জুড়ি নেই। শিখে নিন খুব সুস্বাদু মাংস পিঠার সবচাইতে সহজ রেসিপিটি।

উপকরণঃ
পুরের জন্য
– ১ কাপ ছোট করে কাটা মাংস সেদ্ধ
– আধা কাপ আলু কুচি
– আধা কাপ পেঁয়াজ মিহি কুচি
– কাঁচা মরিচ কুচি ঝাল বুঝে
– ১ চা চামচ কাবাব মসলা
– ১ চা চামচ আদা-রসুন বাটা
– ২ টি এলাচ
– ১ খণ্ড দারুচিনি
– ২ টি লবঙ্গ
– ২ চা চামচ তেল বা ঘি
– লবন স্বাদ মতো

পিঠার জন্য
– ৫০০ গ্রাম আটা বা ময়দা
– ৫০ গ্রাম সুজি
– ১/৪ কাপ ঘি
– লবন স্বাদ মতো
– পানি পরিমাণ মতো
– তেল ভাজার জন্য

পদ্ধতিঃ
পুর তৈরি
– প্রথমে প্যানে তেল দিয়ে গরম করে এতে আদা-রসুন বাটা দিয়ে নেড়ে নিন ভালো করে। একটু লালচে হয়ে এলে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে নরম করতে থাকুন। গরম মসলা ও কাবাব মসলা দিয়ে লবন দিয়ে দিন।
– এরপর এতে আলু কুচি ও মাংস কুচি দিয়ে ভালো করে নেড়ে ভাজা ভাজা করতে থাকুন। আলু সেদ্ধ হয়ে ও মাংস ভাজা হয়ে এলে পুর তৈরি হয়ে যাবে। স্বাদ দেখে নামিয়ে রাখুন।

পিঠা তৈরি
– আটা/ময়দার সাথে সুজি ভালো করে হাতে মিশিয়ে নিন ও সামান্য লবণ দিন। এরপর ঘি ঢেলে হাত দিয়ে মাখাতে থাকুন। এতে খাস্তা হবে। তারপর পানি দিয়ে মেখে ডো তৈরি করে নিন।
– রুটি বেলার মতো করে ডো তৈরি করবেন। এরপর ছোট ছোট করে গোল রুটি তৈরি করে নিন। পুরির মতো পাতলা ছোট রুটি তৈরি করে নিন। এরপর ঠিক মাঝে পুর দিয়ে রুটিটি ভাঁজ করে ফেলুন। অর্ধেক চাঁদের মতো হবে।
– একটি কাটা চামচ দিয়ে রুটির মুখ আটকে ফেলুন, যাতে পুর ভেতর থেকে বেরিয়ে না যায়।
– একটি বড় কড়াইয়ে ডুবো তেলে ভাজার জন্য তেল গরম করুন। অল্প আঁচে গরম করে নিন। এরপর বানানো পিঠা ছেড়ে দিন এবং অল্প আঁচেই লালচে করে ভেজে তুলে নিন।
– একটি কিচেন টিস্যুতে রেখে তেল শুষে ফেলুন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেলো মাংস পিঠা। এবার সসের সাথে গরম গরম পরিবেশন করুন।

সূত্র: ওয়েবসাইট

এ সম্পর্কিত আরো লেখা