রামগঞ্জে তিন বসতঘর লুট : আহত ১৪

Ramgonj photo 23--5-2015.jpg..........(2)

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি
রামগঞ্জে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার দিবাগত রাতে সোনাপুরের হাবিবুর রহমানের বসতঘর, দক্ষিণ দরবেশপুরের আবুল কালাম ও আইয়েনগরের আবুল খায়েরের বসতঘরে দুধর্ষ লুটের ঘটনা ঘটেছে। সংঘবদ্ধ লুটেরাদল হাবিবুর রহমান ও আবুল কালামের বসতঘরের ভেন্টিলেটর ভেঙ্গে এবং সিঁধ কেটে আবুল খায়েরের বসতঘরে প্রবেশ করে নগদ ২লাখ ৭০ হাজার টাকা, ১৬ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, মোবাইল সেট, আসবাবপত্রসহ ১১লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।
সৃষ্ট ঘটনায় আবুল কালামের পরিবারের আবুল কালাম সহ জাহানারা বেগম, রিনা আক্তার, রোকসানা বেগম, আঃ আজিজ, মেহেরুন, অনিক, লামীয়া নামের ৮জন, আবুল খায়ের, হাবিবুর রহমানের পরিবারের নওশের, মোবারক, ফাহিম, হাছিনা আক্তার, ছকিনা বেগম নামের ৫ জন সহ মোট ১৪ জন আহত হয়। আহতদের রামগঞ্জ সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
পারিবারিক সূত্র জানায়, শুক্রবার রাত ১০টায় আবুল কালামের পরিবার রাতের খাবার খাওয়ার সাথে সাথে অচেতন হয়ে পড়ে। পরে রাত আনুমানিক ১২টায় ভেন্টিলেটর ভেঙ্গে ৮/১০ জন ভিতরে প্রবেশ করে আসবাবপত্র ভেঙ্গে নগদ দেড় লাখ, ১০ ভরি ¯¦র্ণালংকার, মোবাইল সেট সহ ব্যবহৃত সকল মালামাল এবং একই কায়দায় বৃহস্পতিবার রাতে সোনাপুরের হাবিবুর রহমানের বসতঘরে প্রবেশ করে নগদ ৫০ হাজার টাকা, ২ভরি স্বর্ণালঙ্কার, প্রয়োজনীয় মালামাল এবং শুক্রবার রাতে সিঁধ কেটে আবুল খায়েরের বসতঘরে প্রবেশ করে অস্ত্রের মূখে সকলকে জিম্মি করে নগদ ৭০ হাজার টাকা, ৪ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নিয়ে যায়। এলাকাবাসীর ধারণা লুটেরাদের কোন সহযোগী আবুল কালাম ও হাবিবুর রহমানের খাবারে নেশা দ্রব্য মিশিয়ে যায়।
রামগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ লোকমান হোসেন জানান, ঘটনা শুনেছি। এ সিন্ডিকেটকে হাতে নাতে আটকের জন্য চেষ্টা চলছে।
#

এ সম্পর্কিত আরো লেখা