বিয়ের পরপরই সঙ্গীর সাথে যে বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলবেন না

life-23651

বিয়ের পর জীবনসঙ্গীর সাথে যেহেতু পুরো জীবন কাটাতে হয় সেহেতু যতোটা স্বচ্ছ থাকা যায় ততটাই ভালো। এতে ভুল বুঝাবুঝি বেশ কম হয়। কিন্তু প্রতিটি জিনিসের নির্দিষ্ট সময় এবং পরিস্থিতি রয়েছে। আপনি ভুল সময়ে সত্য কথা বললেও আপনাকে ভুল বুঝতে পারেন আপনার সঙ্গী। তাই কিছু যদি বলতেই হয় তাহলে সময়ের জন্য অপেক্ষা করুন। আর বিয়ের পরপরই কিছু বিষয় নিয়ে কথা বলার ক্ষেত্রে খুবই সতর্ক থাকবেন। কিছু কথা একেবারে বিয়ের পরপরই বলে ফেলবেন না সঙ্গীকে।

১) বিয়েতে কতোটা খরচা হয়েছে-
বিয়ের পরপরই এই বিষয়টি নিয়ে আলাপ করার কোনো সময় নয়। অনেকেই বিয়ের পর হানিমুন না অন্যান্য স্থানে যাওয়ার সময়ে হাতে টাকা নেই বলেই বিয়ের খরচের কথা হুট করেই বলে ফেলেন যা একেবারেই উচিত নয়। বিয়েতে খরচ হবেই আর তা নিয়ে বিয়ের কিছুদিনের মধ্যেই সঙ্গীকে কিছু বলার কারণে সঙ্গীর আপনার সম্পর্কে ভুল ধারণার সৃষ্টি হবে। এমনকি সঙ্গী মনে মনে কষ্টও পেতে পারেন এই ব্যাপারে।

২) আপনার নিজের জন্য কিছু সময়ের প্রয়োজন-
বিয়ের পরের সময়টা আপনাদের দুজনের জন্য। নিজেদের মধ্যে সখ্যতা গড়ে তোলার সঠিক সময়ই হচ্ছে বিয়ের ঠিক পরপর। আর এই সময়টাতে যদি আপনি সঙ্গীকে বলেন আপনার আলাদা করে নিজের জন্য সময়ের প্রয়োজন তাহলে সঙ্গী আপনার প্রতি রুষ্ট হতেই পারেন। তাই এই ভুলটি করবেন না।

৩) সঙ্গীর বন্ধুবান্ধব নিয়ে বাজে কথা-
সঙ্গীর বন্ধুবান্ধব আপনার কাছে ভালো না লাগলেও বিয়ের পরপরই তা প্রকাশ করতে যাবেন না। হতে পারে আপনি খুব অল্প সময়ের জন্য তাদের দেখে কথা বলে ফেলছেন। কিন্তু আপনাকে বুঝতে হবে বিয়ের আগে তারাই আপনার সঙ্গীর অনেক আপনজন হিসেবে ছিলেন এবং এখনো আছেন। বিয়ের পরপরই তাদের সম্পর্কে কথা বলে সঙ্গীর চোখে নিজে খারাপ হতে যাবেন না।

৪) সঙ্গীর পরিবার সম্পর্কে মন্তব্য করা-
বিয়ের পরপর যে বিষয় নিয়ে একেবারেই নিরপেক্ষ কথা বলবেন তা হচ্ছে সঙ্গীর পরিবার। ভুলেও এমন কিছু বলে বসবেন না যা আপনার বিরুদ্ধেই চলে যায় এবং সঙ্গীর মন মেজাজ খারাপ হয়ে যায়। যদি আপনার কোনো ব্যাপার খারাপ লেগেই থাকে তারপরও সঠিক সময়ের অপেক্ষা করুন।

৫) সঙ্গীর কর্মজীবন নিয়ে কথা-
বিয়ের পর থেকেই যদি আপনি সঙ্গীর কানের কাছে বলতে থাকেন, তিনি যে কাজটি করেন তা আপনার একেবারেই পছন্দ নয়, তিনি কেন অন্য কিছু করছেন না ইত্যাদি তাহলে সঙ্গীর মনে হতেই পারে তিনি আপনাকে বিয়ে করে ভুল কাজ করেছেন। কিছু বলার আগে খুবই ভালো করে বুঝে কথা বলুন।

সংগৃহীত

এ সম্পর্কিত আরো লেখা