ঋণ জালিয়াতি: ব্র্যাকের ম্যানেজারসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

b-dudok

ঋণ জালিয়াতির মাধ্যমে প্রায় ৭৯ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ব্র্যাক ব্যাংকের সিনিয়র ম্যানেজার আব্দুর রাজ্জাক সরকারসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে রমনা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

রোববার দুদকের অনুসন্ধানী কর্মকর্তা উপ পরিচালক সেলিনা আখতার বাদী হয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে দন্ডবিধির ৪০৯/১০৯ এবং ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের৫ (২) ধারায় রমনা মডেল থানায় মামলাটি দায়ের করবেন। মামলা নং-৩। এ মামলায় ১৪ আসামির মধ্যে ব্র্যাক ব্যাংকের ৯ জন এবং বাইরের নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের বাসিন্দা ও জালিয়াত চক্রের ৫ সদস্য রয়েছে।

ব্র্যাক ব্যাংকের ৯ জনের মধ্যে সিনিয়র ম্যানেজার আব্দুর রাজ্জাক সরকার,সাবেক হেড অব ক্রেডিট অ্যান্ড কালেকশন অরুপ হায়দার, পোষ্ট ফোলিও ম্যানেজার মির্জা হাসিবুল হালিম,অ্যাসোসিয়েট রিলেশনশীপ অফিসার তাহসীন শহীদ, ক্রেডিট অ্যানালিস্ট বিপ্লব কুমার মন্ডল, অ্যাসোসিয়েট রিলেশনশীপ অফিসার তারিকুস ছালাম, এল বিসি ম্যানুফ্যাকচারিং অডিট ম্যানেজার আলী আমরান, সিনিয়র অফিসার মতিয়ার রহমান,কাস্টমার রিলেশন অফিসার নজরুল ইসলাম এবং বাইরের জালিয়াত চক্রের সদস্য ও ঋণ গ্রহণকারী নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ, মিজানুর রহমান, আবুল কাশেম, আবু সাইদ ও আশরাফ উল সাইদ শিপু।

অভিযোগ রয়েছে, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ভুয়া জাগজপত্র তৈরি এবং ঋণ জালিয়াতির মাধ্যমে প্রায় ৭৮ লাখ ৯৮ হাজার ২৩০ টাকা আত্মসাৎ করেন। দুদকের অনুসন্ধানেও আসামিদের বিরুদ্ধে সুনিদিষ্ট অভিযোগের সত্যতা মিলছে। যারফলে কমিশন গত ২৭ জুলাই ওই ১৪ আসামির বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের অনুমোদন দেয়। আসামিরাদর বিরুদ্ধে ২০১৪ সালে ব্র্যাক ব্যাংকের ঋণ জালিয়াতির মাধ্যমে প্রায় ৭৯ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগটি অনুসন্ধান শুরু করে দুদক।গত ৩ মে দুদকের অনুসন্ধানী কর্মকর্তা সেলিনা আখতার প্রতিবেদন দুদকের সংশ্লিষ্ট শাখায় জমা দেন।

এ সম্পর্কিত আরো লেখা