রৌমারীতে মা ও বোনকে কুপিয়ে আহত

kurigram_map

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে বউ-শাশুড়ির ঝগড়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্ত্রীর পক্ষ নিয়ে ছেলে তার মাকে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করেছে। এ সময় তার বোন বাঁধা দিতে গেলে তাকেও কোপানো হয়।

একপর্যায়ে ওই ছেলেকে আটক করেন প্রতিবেশীরা। এছাড়া মা ও মেয়েকে উদ্ধার করে রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। গ্রামবাসীর হাতে আটক ছেলে আসাদুল হককে (৩০) থানা পুলিশের হাতে সোর্পদ করা হয়েছে। রোববার রাতে উপজেলার বাওয়ার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রামের লোকজন জানান, বাওয়ার গ্রামের আজহার আলীর ছেলে আসাদুল হকের স্ত্রী আঞ্জুয়ারা বেগমের (২৫) সঙ্গে আসাদুলের মা আক্তারুন নেছার (৫০) ঝগড়া বাঁধে। এতে ছেলে উত্তেজিত হয়ে মা ও কলেজ পড়ুয়া বোন আফরোজা খাতুনকে (১৭) দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়। প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে পাষণ্ড ছেলের হাত থেকে মা ও বোনকে উদ্ধার করেন। বর্তমানে মা ও বোন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আর ছেলে পুলিশের হেফাজতে।

এ ব্যাপারে রৌমারী থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আহত মা বাদী হয়ে ছেলে ও ছেলের বউকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন।

রৌমারী থানার ওসি (তদন্ত) রবিউল ইসলাম মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এ সম্পর্কিত আরো লেখা