আইফোন সেভেন হবে পানিরোধী, থাকছে না হেডফোন জ্যাক

iphone_concept_1

বিশ্বসেরা প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাপল তাদের ফ্লাগশিপ স্মার্টফোন আইফোনের সেভেন ভার্সন নির্মাণের কাজ শুরু করেছে। এ বছরই নতুন একটি স্মার্টফোন এবং স্মার্টওয়াচ আনতে যাচ্ছে। তবে আইফোন সেভেনের দুটি ফিচার মিডিয়ায় জানা গেছে। এগুলো হলো পানিরোধী ফিচার ও হেডফোন জ্যাক বাদ দেওয়া।

এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার।

ঠিক কবে নাগাদ আইফোন সেভেন বাজারজাত করা হবে, তা এখনো জানায়নি প্রতিষ্ঠানটি। অ্যাপলের ঐতিহ্য অনুসারে যেকোনো একদিন অনুষ্ঠান করে তা বাজারে আনবে অ্যাপল। তার আগ পর্যন্ত পণ্য বিষয়ে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে কোনো তথ্য জানায় না অ্যাপল। নাইন টু ফাইভ ম্যাক এর বরাত অনুসারে অ্যাপল মার্চ মাসে একটি ইভেন্ট আয়োজন করতে যাচ্ছে। তবে ধারণা করা হচ্ছে আগামী মার্চে একটি অনুষ্ঠানে আইফোন সেভেন নয় বরং অ্যাপল ওয়াচ এবং নতুন আইফোন ৬সি উম্মুক্ত করতে যাচ্ছে। এর কয়েক মাস পর অর্থাৎ সেপ্টেম্বরের দিকে বাজারে আসতে পারে আইফোন সেভেন।

নতুন আইফোনে ৩.৫ মিলিমিটার হেডফোন জ্যাক বাদ দেওয়ার ফলে তা আরও পাতলা করা সম্ভব হবে। এতে আইফোনটি ব্যবহারে সুবিধা বাড়বে। তবে ব্যবহারকারীরা একেবারেই যে হেডফোন ব্যবহার করতে পারবেন না, এমনটা নয়। তাদের গান শোনার জন্য তারহীন হেডফোন ব্যবহারের সুবিধা থাকবে। এ ছাড়া ইউএসবি পোর্ট দিয়েও তা ব্যবহার করার ব্যবস্থা রাখা হতে পারে বলে জানা গেছে।

আইফোন সেভেনের আরেকটি ফিচার হলো পানিরোধী ব্যবস্থা। নতুন আইফোনে পানি রোধ করার জন্য বিভিন্ন সিল ও গাসকেটের ব্যবস্থা থাকছে। আর এ কারণেই স্মার্টফোনটি পানিরোধী করে নির্মাণ করা সম্ভব হবে।

আইফোন ৭-এর সাধারণটির আকার হবে ৪.৭ ইঞ্চি ও বড়টি ৫.২ ইঞ্চি পর্দার। জানা গেছে, আইফোনের পর্দার ওপর ও নিচে দুটি সরু লাইন থাকবে, যেখানে থাকবে প্রয়োজনীয় সেন্সর। সেন্সরগুলো নির্ণয় করতে পারবে যে, ফোনটি আপনার পকেটে আছে নাকি সেখান থেকে বের করা হয়েছে। পকেটে থাকলে ফোনটির স্ক্রিন স্বয়ংক্রিয়ভাবে লক হয়ে থাকবে। তবে পকেট থেকে বের করে মুখের কাছাকাছি নিলে তা আনলক হয়ে যাবে।

এ সম্পর্কিত আরো লেখা