শিক্ষাকে ডিজিটাল করতে বিত্তবানরা এগিয়ে আসুন : প্রধানমন্ত্রী

PM-Sheikh-Hasina-4

প্রাথমিক শিক্ষাকে ডিজিটাল করতে বিত্তবানদের নিজ নিজ এলাকার বিদ্যালয়গুলোতে মাল্টিমিডিয়া সিস্টেমসহ তথ্য-প্রযুক্তি উপকরণ উপহার দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।তিনি বলেন, আজকের শিশুরাই কিন্তু আগামী দিনের শিক্ষক। তাই শিশুদের সুযোগ করে দিতে তাদের জন্য প্রযুক্তি ব্যবহার সহজলভ্য করা হচ্ছে।

রোববার দুপুরে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে প্রাথমিক শিক্ষা কনটেস্ট ডিজিটাল ভার্সনে রূপান্তর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা মাধ্যমিককে ডিজিটাল করে দিব। আমরা সেভাবে পদক্ষেপ নিচ্ছি। শিক্ষা শুধু বই পড়ে হয় না। চোখে দেখে অনেক শেখা যায়। আমরা সেভাবে আমাদের ছেলে-মেয়েদের শেখাতে চাই।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের যেসব শিক্ষার্থীরা বিদেশে যায় তারা অনেক ভালো ফলাফল করে। এ থেকে বোঝা যায় বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা অনেক বেশি মেধাবী ও মননশীল। ডিজিটাল বাংলাদেশে এসব শিক্ষার্থীদের মেধাকে বিকশিত করতেই তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক উপকরণগুলো সহজলভ্য করা হচ্ছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই প্রাথমিক শিক্ষার উন্নয়নে নানা ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছি। কিন্তু ২০০১ সালে নানা ষড়যন্ত্রের মধ্য দিয়ে সরকার গঠন করতে দেয়া হয়নি। যার কারণে সাক্ষরতার হার কমে যায়, প্রাথমিকে ঝড়ে পড়ার হারও বাড়ে। কিন্তু পরবর্তীতে সরকার গঠনের পর আমরা প্রাথমিক শিক্ষার উন্নয়নে নানা পদক্ষেপ নিয়েছি।

পার্বত্য চট্ট্রগামের দুর্গম এলাকায় প্রাথমিক শিক্ষার বিস্তার ঘটাতে সেখানকার বিদ্যালয়গুলোকে আবাসিক করার পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী। শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে বিদ্যালয়গুলোতে হোস্টেল নির্মাণ করে দেয়া হবে।

অনুষ্ঠানে স্যার ফজলে হাসান আবেদ, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ সম্পর্কিত আরো লেখা