প্রসিকিউটরদের কাঠগড়ায় দাঁড়ানোর সময় এসেছে: প্রধান বিচারপতি

sk-sinha1

জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলীর মামলাসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের অন্যান্য মামলা পরিচালনার ক্ষেত্রে ট্রাইব্যুনালে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও তদন্ত সংস্থার অদক্ষতা, অযোগ্যতা এবং দুর্বলতার জন্য আবারও তীব্র অসন্তোষ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। তিনি বলেছেন, তদন্ত সংস্থা ও প্রসিকিউটরদের একই কাঠগড়ায় দাঁড়ানোর সময় এসেছে।

আজ বুধবার সকালে মীর কাসেমের আপিল শুনানিকালে এ মন্তব্য করেন তিনি।

প্রধান বিচারপতি বলেন, মীর কাসেম আলীর মামলায় একজন করে সাক্ষী হাজির করা ছাড়া আর কোনো তথ্য-উপাত্ত পেশ করতে পারেননি প্রসিকিউটরা। একটি মামলায় আরও অনেক তথ্য-উপাত্ত থাকে। কিন্তু এই মামলায় এর কিছুই নেই। এজন্য প্রধান বিচারপতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এদিকে, মীর কাসেম আলীর আপিল মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের যুক্তিতর্ক (আর্গুমেন্ট) উপস্থাপন শেষ হয়েছে। আজ বুধবার আপিল মামলার ৭ম দিনের শুনানিতে মীর কাসেমের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ করেছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। রাষ্ট্রপক্ষের পরে জবাবে আসামিপক্ষে সমাপনী যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করছেন মীর কাসেমের প্রধান আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন। তিনি আধাঘণ্টা সুযোগ পাবেন। এরপর আপিল মামলাটির রায় প্রদানের দিন ধার্য হতে পারে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

২০১৪ সালের ২ নভেম্বর মীর কাসেমকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২। একাত্তরে কিশোর মুক্তিযোদ্ধা জসীমসহ আটজনকে হত্যায় সংশ্লিষ্টতা প্রমাণিত হওয়ায় তাকে এই সাজা দেয়া হয়। পরে ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন মীর কাসেম।

এ সম্পর্কিত আরো লেখা