বোরহানউদ্দিনে ২৪ ঘন্টায় ৩ বাল্য বিয়ে বন্ধ

Bhola map

বরের জেল বর-কনের বাবার জরিমানা
ভোলা প্রতিনিধি : ভোলার বোরহানউদ্দিনে ২৪ ঘন্টারও কম ব্যবধানে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে ৩ স্কুলছাত্রী। এ সময় ১ বরকে জেল ও বর ও কনের বাবাকে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইনে জরিমানা করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আ. কুদদুস জানান, সোমবার ১২টার দিকে শারমিন (১৩) নামের এক স্কুল ছাত্রীর বিবাহ বন্ধ করা হয়। শারমিন উপজেলার হাসাননগর ইউনিয়নের মধ্যমধলী গ্রামের মোস্তাফিজুর রহমানের মেয়ে। সে ভৈরবগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী। তার সাথে একই উপজেলার বড়মানিকা ইউনিয়নের বাটামারা গ্রামের বাসু হাওলাদারের ছেলে রবিউল আলমের বিবাহের প্রস্তুতির সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তিনি কনের বাড়িতে হাজির হন। ওই সময় বড় ও কনের বাবাকে ১ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।
এছাড়া ইউএনও রোববার দিবাগত রাতে উপজেলার হাসাননগর ইউনিয়নের ফকিরকান্দি গ্রামের শফিউল্লাহর মেয়ে ইয়ানুরের (১৪) সাথে একই উপজেলার সাচড়া ইউনিয়নের চরগাজিপুর গ্রামের আ. জলিলের ছেলের এরশাদের বিবাহ প্রস্তুতির সময় কনের বাড়িতে হাজির হন। ওই সময় ইয়ানুরের বিবাহ বন্ধসহ বর এরশাদকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়। একই দিনে উপজেলা কুতুবা ইউনিয়নের ৯ নাম্বার ওয়ার্ডের বাবুল চন্দ্র দে’র মেয়ে নন্দিতা রাণী দে’র (১৩) বিবাহ বন্ধ করেন বলে ইউএনও আ. কুদদুস জানান।
#

এ সম্পর্কিত আরো লেখা