খুন হয়ে গেলেন বিখ্যাত সেই সোনার শার্ট পরা দত্তা ফুগে

gold-man-datta-phuge

সোনার শার্ট গায়ে চড়িয়ে বিখ্যাত হয়েছিলেন পুনের হাই-প্রোফাইল ব্যবসায়ী-রাজনীতিবিদ দত্তা ফুগে। সংবাদ-শিরোনামে জায়গা করে নিয়েছিলেন ‘পিম্পরি গোল্ডম্যান’ নামে। এদিন সকালে, পুনের দিঘি নামে একটি জায়গায় তাঁর দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
অনুমান করা হচ্ছে, বৃহস্পতিবার রাতে, বেশ কয়েকজন দুষ্কৃতী তাঁর গাড়িতে হামলা চালায়। সেখানেই তাঁকে খুন করা হয়। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশ জানিয়েছে, দুষ্কৃতীরা গাড়ি থেকে বের করে রাস্তায় ফেলে দত্তাকে বেধড়ক মারধর করে। পরে কাস্তে দিয়ে কোপানো হয়। মৃত্যু নিশ্চিত করতে ভারী পাথর দিয়ে মাথা থেঁতলে দেওয়া হয় তাঁর।
উল্লেখ্য, ৩৫ বছরের ‘গোল্ডম্যান’ ব্যক্তিগত সশস্ত্র বডিগার্ড নিয়ে ঘোরাফেরা করতেন। কিন্তু ঘটনার সময়, তাঁর গাড়িতে কোনও বডিগার্ড ছিল না।
এই নৃশংস খুনের মোটিভ পরিষ্কার না হলেও, ব্যবসা সংক্রান্ত কোনও বিবাদের জেরেই এই খুন, ধারণা পুলিশের। তবে খুনের কিনারা করতে সব দিক খতিয়ে দেখছে পুলিশ।
২০১২ সালে বিশ্বদরবারে ৩.৫ কেজির ‘পিওর’ সোনার শার্ট পরে লাইমলাইটে এসেছিলেন এই কোটিপতি ব্যাবসায়ী। ভারতের বাজারে যার মূল্য পার্য় ১ কোটি টাকা।
শার্টের বোতামগুলি ছিল দামি ক্রিস্টাল পাথর (২২ কারাটের)দিয়ে তৈরি। জামার সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখতে বেল্টটিও ছিল অভিনব ডিজাইনের। ‘গোল্ডেন শার্টে’ প্রায় ১৪ হাজার সোনার ফুল স্টিচ করেছিল পুনের বিখ্যাত রঙ্কা জুয়েলারীর কর্মীরা। আরামদায়ক করতে জামার ভিতর ছিল মখমল ভেলভেটের কাপড়ও।
জানা গিয়েছে, দত্তার একটি চিটফান্ড সংস্থা ছিল। সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছেন, বেশ কয়েকদিন ধরেই তাঁর বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠছিল। তার জেরেই এই খুন, এমন জল্পনাও চলছে।
#

এ সম্পর্কিত আরো লেখা