ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় বরসহ ৮ জন নিহত

road-accident

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংবাদদাতা : ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলার বিজয়নগরে যাত্রীবাহী বাস ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে বরসহ একই পরিবারের ৮ জন নিহত ও অপর ৯ জন গুরুতর আহত হয়েছেন।
শুক্রবার সকালে ৯টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়।
পুলিশ জানায়, সকাল প্রায় সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার শশই নামক স্থানে সিলেটগামী এনা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস (ঢাকা মেট্রো-ব-১৪-৭৮৫১) এর সাথে মৌলভী বাজার থেকে আসা বরযাত্রীবাহী একটি নোহা মাইক্রোবাস (ঢাকা মেট্রোÑচ-১৩-৯২২৬) এর মুখোমুিখ সংঘর্ষে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে মাইক্রোবাসটি দুমড়ে মুচড়ে যায়।
পুলিশ জানায়, ঘটনাস্থলেই মাইক্রোবাসে থাকা বরযাত্রীসহ ৭ জন নিহত হন। গুরুতর আহত একজনকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। দুর্ঘটনার পর মহাসড়কের প্রায় ১ ঘন্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। এ সময় মহাসড়কের উভয় পাশে কয়েক কিলোমিটার জুড়ে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়। পরে সড়ক ও জনপথ এর দু’টি রেকার গিয়ে দুর্ঘটনা কবলিত গাড়িগুলো মহাসড়ক থেকে সরিয়ে নিলে পুনরায় যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।
নিহতরা হলেন, মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ থানার রূপসপুর গ্রামের বর আবু সুফিয়ান, বরের ভাই মো. কামরান, বরের বাবা ছয়ফুর রহমান, বরের দাদা মোক্তার, বরের স্বজন আবুদর রশীদ, আব্দুল হান্নান, আলী হোসেন, জাকির।
মাইক্রোবাস যাত্রী তারেকুল ইসলাম ও অজ্ঞাত এক যুবককে গুরুতর আহত অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ও এনা পরিবহন বাসের ৭ যাত্রীকে মাধবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
হাসপাতাল সূত্র জানায়, আবু সুফিয়ানের বিয়ে উপলক্ষে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ থেকে তারা সবাই ঢাকার উদ্দেশ্যে যাচ্ছিল।
খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির জানান, সকাল সাড়ে ৯টার টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বিজয়নগর উপজেলার শশই এলাকায় সিলেটগামী এনা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসেরর সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে মাইক্রোবাসের আট আরোহী মারা যান। এ ঘটনায় আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনার পর বাসের চালক ও হেলপার পলাতক রয়েছে।
#

এ সম্পর্কিত আরো লেখা