সউদীতে আসছে নতুন ইমিগ্রেশন আইন : বিপদে ৫০ লাখ অভিবাসী

saudi_workers

সউদী আরবের সরকার নতুন কিছু অভিবাসী আইন প্রণয়নের লক্ষ্যে আলোচনা করছে যার ফলে সে দেশে প্রায় ৫০ লাখ অভিবাসীর এক বিরাট অংশকে বহিষ্কার করা হতে পারে। সউদী দৈনিক আল-হায়াতের এক খবরে বলা হয়েছে, সউদী শুরা কাউন্সিল অবৈধ অভিবাসন নির্মূল করার লক্ষ্য নিয়ে একটি বিশেষ কমিশন গঠনের প্রশ্নে আলোচনা করছে। সউদী আরবের অবৈধ অভিবাসী সমস্যা সম্পর্কে এ কাউন্সিলের জন্য একটি রিপোর্ট তৈরি করেছেন কাউন্সিল সদস্য ড. সাদকা ফাদেল।
বিবিসির সাথে এক সাক্ষাৎকারে ড. ফাদেল বলছেন, হজ, ওমরা কিংবা ভিজিট ভিসা নিয়ে এশিয়া এবং আফ্রিকার নানা দেশে থেকে বিপুল সংখ্যক মানুষ সউদী আরবে প্রবেশ করেছেন। কিন্তু এদের বেশিরভাগই আর কখনই নিজ দেশে ফিরে যাননি। নিজেদের পাসপোর্ট ফেলে দিয়ে তারা রাজধানী রিয়াদ, জেদ্দা, মক্কা, মদিনা এবং তাইফের মত শহরে লুকিয়ে কাজকর্ম করছেন। স্থানীয়ভাবে কেউ কেউ বিয়েও করেছেন। এদের মধ্যে একটা বড় অংশ নানা ধরনের অপরাধের সাথে যুক্ত হয়ে পড়েছেন।
তিনি জানান, এই সমস্যাটিকে সউদী সরকার জাতীয় নিরাপত্তার প্রতি বড় একটি হুমকি হিসেবে বিবেচনা করছে। আর সেজন্যই অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপের চিন্তাভাবনা চলছে। কিন্তু অবৈধ অভিবাসীদের বৈধভাবে সউদীতে থাকার ব্যবস্থা করে এদের অপরাধের পথ থেকে সরে আসার সুযোগ কেন সউদী সরকার দিচ্ছে না? বিবিসির এমন প্রশ্নের জবাবে ড. ফাদেল জানান, এসব অবৈধ অভিবাসী যাতে বৈধ হতে পারে সউদী সরকার প্রাথমিকভাবে সেই চেষ্টাই করবে। পাশাপাশি এসব মানুষের মানবাধিকারের প্রশ্নটিও জড়িত রয়েছে।
তিনি বলেন, যাদের কাগজপত্র ঠিক করা যাবে, তারা বৈধভাবে থাকার অনুমতি পাবেন। কোন কোন ক্ষেত্রে সউদী নাগরিকত্ব দেয়ার প্রশ্নটিও বিবেচনার মধ্যে রয়েছে। কিন্তু বহু অবৈধ অভিবাসী রয়েছেন যারা অপরাধের সঙ্গে যুক্ত। এদের সউদী আরব ছাড়তে হবে বলে তিনি জানান। সূত্র : বিবিসি বাংলা।
#

এ সম্পর্কিত আরো লেখা