ভারতে ‘মানুষখেকো’ অভিযোগে হামলার শিকার আফ্রিকানরা

african in delhi

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ রাজধানী দিল্লীর কাছে আফ্রিকান জনগোষ্ঠীর উপর হামলা চালানোর অভিযোগ তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন।
সোমবার একটি বিক্ষোভ মিছিল সহিংস হয়ে ওঠার পর মিছিলে অংশগ্রহণকারীরা বেশ কিছু সংখ্যক আফ্রিকানের উপর হামলা চালায়।
এই বিক্ষোভকারীরা একটি স্কুল বালকের মৃত্যুর প্রতিবাদ জানাচ্ছিল।
দিল্লির মনিশ খত্রি নামের এই স্কুল বালকটি গত শুক্রবার নিখোঁজ হবার পর থেকেই ঘটনার সূত্রপাত।
গুজব ছড়িয়ে পড়ে, মনিশের বাড়ির পাশে বসবাসরত আফ্রিকান, বিশেষ করে নাইজেরিয়ানরা তাকে মেরে খেয়ে ফেলেছে।
অবশ্য পরে মনিশকে পাওয়া যায়, কিন্তু উচ্চমাত্রার মাদক গ্রহণের কারণে শনিবার তার মৃত্যু হয়।
এরপর মনিশের পিতা-মাতা তাদের বিদেশী প্রতিবেশীদেরকেই খুনী বলে অভিযোগ করে।
এ অভিযোগ ওঠার পর স্থানীয়রা বেশ কিছু আফ্রিকানকে ধরে মারধর করে।
একটি শপিংমলে গিয়ে হামলার শিকার হন একজন আফ্রিকান।
আরেক নাইজেরিয়ান মহিলাকে অপহরণ করা হয় বলেও অভিযোগ ওঠে, যদিও পুলিশ এই অভিযোগ নাকচ করে দেয়।
ভারতে আফ্রিকানদের বর্ণবিদ্বেষী হামলার শিকার হওয়ার ঘটনা নতুন নয়।
গত বছরও ভারতে তাঞ্জানিয়ার নাগরিকদের উপর বর্ণবিদ্বেষী হামলা চালানো হয়েছিল বলে অভিযোগ রয়েছে।
#

এ সম্পর্কিত আরো লেখা