মার্কিন পাসপোর্ট-ভিসায় তেল আবিবই রাজধানী

USA Passport

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতির ঘোষণা দিলেও শহরটিতে যুক্তরাষ্ট্রের কনস্যুলার সেবা কিংবা ভিসা ইস্যুর ক্ষেত্রে কোনও পরিবর্তন আনা হচ্ছে না। অর্থাৎ জেরুজালেমকে কোনও নির্দিষ্ট দেশের অন্তর্ভূক্ত দেখিয়ে আলাদা কোনও পরিবর্তন আনা হচ্ছে না। মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের এক কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে জেরুজালেমভিত্তিক সংবাদমাধ্যম জেরুজালেম পোস্ট খবরটি জানিয়েছে।
জেরুজালেম পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, এতোদিন যুক্তরাষ্ট্রের পাসপোর্টগুলোতে জেরুজালেমকে কোনও নির্দিষ্ট দেশের অন্তর্ভূক্ত হিসেবে দেখানো ছিল না। তবে শহরটিকে রাজধানীর স্বীকৃতি দিলে যুক্তরাষ্ট্র কনস্যুলার সেবার প্রটোকলেও পরিবর্তন আনতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছিলো। তবে শুক্রবার মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের এক কর্মকর্তা সাংবাদিকদের কাছে পরিবর্তনের সম্ভাবনা নাকচ করে দেন।
৬ ডিসেম্বর বুধবার জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃতির সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইসরায়েলের মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে সরিয়ে জেরুজালেমে নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতির কথাও জানান তিনি। শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) পররাষ্ট্র দফতরের ওই কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, শহরটিকে ইসরায়েলি রাজধানী স্বীকৃতির সিদ্ধান্তে কনস্যুলার সেবা কিংবা ভিসা ইস্যু করার ক্ষেত্রে কোনও পরিবর্তন আসবে না। জেরুজালেমের স্বীকৃতি কাগজে-কলমে উল্লেখ করা জরুরি নয় বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এ সম্পর্কিত আরো লেখা