ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সরব লেখক, সংগীতশিল্পী ও অভিনেতারা

donald-trump-

জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে মার্কিন স্বীকৃতির বিরুদ্ধে তুমুল নিন্দার ঝড়ে শামিল হয়েছেন লেখক, সংগীতশিল্পী ও অভিনয়শিল্পীরাও। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ানের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন শিল্প ও সাহিত্য অঙ্গনের প্রখ্যাত ব্যক্তিরা।
৬ ডিসেম্বর বুধবার জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃতির সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইসরায়েলের মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে সরিয়ে জেরুজালেমে নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতির কথাও জানান তিনি। এরপর বিশ্বজুড়ে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড় ওঠে। সোমবার (১১ ডিসেম্বর) গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়, শিল্প জগতের ব্যক্তিরাও এ সমালোচনার কাতারে শামিল হয়েছেন। ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে তারা গার্ডিয়ানের কাছে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন। ওই চিঠিতে স্বাক্ষরকারী ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন, টিলডা সুইনটন, মার্ক রুফালো, রজার ওয়াটেরস, পিটার গ্যাব্রিয়েল এবং ব্রায়ান ইনো। চিঠিতে আরও স্বাক্ষর করেছেন, নাট্যকার ক্যারিল চার্চিল, পরিচালক মাইক লেইঘ এবং অভিনয়শিল্পী ম্যাক্সিন পিক, জুলি ক্রিস্টি এবং জুলিয়েট স্টিফেনসন।
চিঠিতে অভিযোগ করা হয়, ‘ইসরায়েল সরকার প্রত্যেকটি পর্যায়ে ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর সাম্প্রদায়িক বৈষম্য জারি রেখেছে’ এবং ‘ধীরে ধীরে জাতিগত নিধন প্রক্রিয়া চালাচ্ছে’। ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের কারণে পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন লেখক-সংগীতশিল্পী এবং অভিনয়শিল্পীদের ওই দলটি।
ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে তারা লিখেছেন, ‘এ ধরনের একটি বর্ণবাদী ম্যানিপুলেশনের প্রতি ট্রাম্পের সমর্থন এবং আন্তর্জাতিক আইনের প্রতি তার অবমূল্যায়নকে আমরা প্রত্যাখ্যান করছি। শিল্পী এবং একটি দেশের নাগরিক হিসেবে আমরা এ নীতির ভয়াবহতা ও অমানবিকতাকে চ্যালেঞ্জ করছি এবং দখলদারদের অধীনে ফিলিস্তিনের জারিকৃত প্রতিরোধের প্রতি সমর্থন জানাচ্ছি।’
উল্লেখ্য, ট্রাম্পের ওই ঘোষণাকে কেন্দ্র করে ক্ষোভের আগুন ছড়িয়ে পড়ছে পুরো বিশ্বে। প্রতিবাদ বিক্ষোভের মুখে তিউনিসিয়ায় মার্কিন দূতাবাস বন্ধ ঘোষণা করতে বাধ্য হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আমেরিকার সঙ্গে মুসলিম দেশগুলোর সম্পর্ক ছিন্নের প্রস্তাব দিয়েছে আফগানিস্তানের পার্লামেন্ট। ট্রাম্পের ওই ঘোষণার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে রাশিয়া, ফ্রান্স, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, নাইজেরিয়া, লেবাননসহ বিভিন্ন দেশের নেতাদের সঙ্গে কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান। শুধু প্রতিবাদে সীমাবদ্ধ না থেকে জেরুজালেম ইস্যুতে মুসলিম দেশগুলোকে গঠনমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে কাতার।

এ সম্পর্কিত আরো লেখা